মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

 

সেবা/অধিকারের বিষয়

সেবা প্রদানের পদ্ধতি ও শর্তাবলী

সময়সীমা

প্রতিকার পদ্ধতি

১। দারিদ্র বিমোচনের মাধ্যমে জীবনমানের উন্নয়ন।

গ্রাম বাংলার হতদরিদ্র, অসহায়, বিধবা, স্বামী পরিত্যাক্তা, অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে, তন্মধ্যে ৪০জন মহিলা এবং ২০জন পুরুষ সদস্যসহ সর্বমোট ৬০জনকে নিয়ে সমিতি গঠন করা।

কর্তৃপক্ষের আদেশক্রমে নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে সমিতি গঠন করা হবে।

উপজেলা সমন্বয়কারী, উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

২। পল্লী অঞ্চলে সকল বাড়িকে উৎপাদনমূখী/ আয়বর্ধনমূলক নানাবিধ খামারে রূপান্তরিত করা।

প্রতিটি সদস্য নিজ নিজ সঞ্চয় জমা এবং সেইসাথে সরকারী উৎসাহ সঞ্চয় বোনাস ও ঘূর্ণায়মান ঋণ তহবিলের সমন্বয়ে মোট পূঁজি গঠন করে, নিজেরা নানাবিধ উৎপাদনমূখী/ আয়বর্ধনমূলক প্রকল্প গ্রহণ করে, উঠান বৈঠকের মাধ্যমে ঋণ সহায়তা নিয়ে বাস্তবায়ন করে থাকে।

সদস্যপদ গ্রহণের পর এবং সমিতির উঠান বৈঠকে সিদ্ধান্তের প্ররিপ্রেক্ষিতে।

৩। দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ প্রদান।

উৎপাদনমূখী/ আয়বর্ধনমূলক প্রকল্প গ্রহণের পূর্বে সদস্যগণকে প্রকল্প সুষ্ঠ ও সুন্দর ভাবে বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

৭দিন

৪। আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অংশিদার

সদস্যগণকে উঠান বৈঠনের মাধ্যমে স্বাস্থ্য, পয়ঃনিষ্কাশন, বাল্য বিবাহ, বহু বিবাহ, নারী ও শিশু নির্যাতন, প্রাথমিক শিক্ষা জোরদার করন, জন্ম নিয়ন্ত্রণ, বৃক্ষরোপনসহ নানাবিধ পরামর্শ প্রদান করা হয়।

উঠান বৈঠনের মাধ্যমে

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter